অ্যান্ড্রয়েডের চেয়ে এগিয়ে থাকতে আইফোনে নতুন পাঁচ সুবিধা

Share Now!

আইফোনে নতুন পাঁচ সুবিধা

আইফোনে নতুন পাঁচ সুবিধা – অ্যাপলের সফটওয়্যার নির্মাতাদের সম্মেলন WWDC ভার্চ্যুয়াল মঞ্চে গতকাল সোমবার আইফোনে নতুন বেশ কিছু সুবিধা আনার ঘোষণা দিয়েছে অ্যাপল। আইওএস ১৫ অপারেটিং সিস্টেমে হালনাগাদের মাধ্যমে ব্যবহারকারী এই সুবিধা পাবেন। অ্যাপলের ঘোষণায় ছোট–বড় অনেক সুবিধার কথা ছিল, এখানে তা থেকে সেরা পাঁচটি সুবিধা থাকছে আজকের আয়োজনে। তো চলুন দেখা যাক …

অ্যান্ড্রয়েডের চেয়ে এগিয়ে থাকতে আইফোনে নতুন পাঁচ সুবিধা

 

১. ফেসটাইমেই ‘জুম’

অ্যাপলের ডিভাইসে ভিডিও কল করার সেবা ফেসটাইমে বোধ হয় এবার সবচেয়ে বড় পরিবর্তন আনছে অ্যাপল।  স্পেশাল অডিও  অন্যান্য শব্দ বা Noise থকে মানুষের কণ্ঠ আলাদা করে শোনাবে। এতে গ্রুপ কল আগের চেয়ে স্বাভাবিক মনে হবে। আর গ্রুপ ভিডিও কলে গ্রিড ভিউ নামে সুবিধা যুক্ত হচ্ছে। এটা নির্বাচন করলে সবার ভিডিও একই আকারে দেখাবে, তবে যিনি কথা বলছেন, তিনি থাকবেন কিছুটা আলাদা। Isolation Mode  নির্বাচন করলে Background  শব্দ বাদ দিয়ে কেবল বক্তার কথাই গুরুত্ব পাবে এই Update এ।

ফেসটাইমে পোর্ট্রেট  ও ব্লার মোড আসছে। এতে ছবির বিষয়বস্তু ঠিক রেখে ব্যাকগ্রাউন্ড ঝাপসা করে দেওয়া যাবে।

সবচেয়ে বড় পরিবর্তন হলো ফেসটাইম লিংকস।  এটা  অনেকটা জুমের মতো, আগাম কল ঠিক করে রেখে সবার সঙ্গে লিংক শেয়ার করতে পারবেন ব্যবহারকারী। নির্দিষ্ট সময়ে ওই লিংকে গিয়ে আমন্ত্রিতরা ভিডিও কলে যোগ দিতে পারবেন। সবচেয়ে বড় ব্যাপার, অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন এবং উইন্ডোজ পিসি ব্যবহারকারীরাও ওয়েব থেকে ফেসটাইম কলে যোগ দিতে পারবেন। আগে শুধু এই  সুবিধাটি অ্যাপল ডিভাইস ব্যবহারকারীদের জন্যই ছিল।

 

আরও পড়ুন:

 

২. ‘সবকিছু’ শেয়ার করা যাবে

Share Play  নামের সুবিধার আওতায় নতুন অনেক ফিচার আসছে আইফোনে। গান শোনা বা ভিডিও দেখার সময় ব্যবহারকারী তাঁদের পরিচিতজনদের সঙ্গে ডিভাইসের স্ক্রিন শেয়ার করতে পারবেন। এতে ফেসটাইম কলে  একসঙ্গে অনেকে মিলে ভিডিও দেখা বা গান শোনা যাবে। আবার মনে করুন, আপনি একটি গান শুনছেন, অন্যজন চাহিলেই প্লেলিস্টে পরের গান যুক্ত করতে পারবে। এই  স্ক্রিন শেয়ার করার সুবিধা টি অন্যান্য অ্যাপল ডিভাইসেও আসবে।

এই সুবিধা টি  অ্যাপল মিউজিক এবং টিভি অ্যাপেও এটি কাজ করবে। আবার অন্যান্য ভিডিও স্ট্রিমিং সেবা চাইলে অ্যাপলের সুবিধাটি গ্রহণ করতে পারবে। অর্থাৎ, অ্যাপল টিভি প্লাসে কোনো সিনেমা দেখার সময় তা বন্ধুদের সঙ্গে নিয়ে একসঙ্গে দেখা যাবে।

Shared With You  নামের একটি অপশন যুক্ত হয়েছে। আইমেসেজে আপনাকে কেউ কিছু পাঠালে তা এই অংশে পাবেন। যেমন কেউ ছবি পাঠালে তা ফটোজ অ্যাপের Shared With You  অংশে দেখাবে।

 

৩. ‘চৌকস’ নোটিফিকেশন

Notification সিস্টেমে অনেক দিন ধরেই বড় পরিবর্তনের আশা করছেন আইফোন ব্যবহারকারীরা। এবার সেই কাঙ্ক্ষিত পরিবর্তন আসছে। নোটিফিকেশন সামারি নামের অপশনে দিনভর আসা কম গুরুত্বপূর্ণ নোটিফিকেশনের যেগুলো আপনি দেখেননি, সেগুলো জমা হয়ে থাকবে। পরে সময়মতো চাইলে দেখে নিতে পারবেন।

Do Not Disturb  Mode  সচল করলে আপনাকে বার্তা পাঠানোর আগে অন্যরা তা দেখতে পাবে। এতে বার্তা প্রেরক বুঝে যাবে, আপনি হয় তো বাস্ত আছেন। হয় তো এই মুহূর্তে বার্তার উত্তর দেবেন না। আর যদি ব্যাপারটি  খুবি জরুরি হয়, তবে তা জানানোর অপশনও থাকবে।

Focus Mode  নামে আরেকটি সুবিধা আসছে। কাজ করছেন, অর্থাৎ Work Mode  নির্বাচন করে রাখলে কেবল যে অ্যাপ এবং কন্টাক্ট নির্বাচন করে দেবেন, কেবল তাঁরাই নোটিফিকেশন পাঠাতে পারবেন।

 

আরও পড়ুন:

 

৪. ‘জীবন্ত’ লেখা

জীবন্ত লেখা দেখে ভয় পাবার কিছু  নেই। আইফোন থেকে লেখা বেরিয়ে  আপনার চারপাশে ঘুরে বেড়াবে তা কিন্তু নয়। লাইভ টেক্সট নামের সুবিধায়  Artificial Intelligence অর্থাৎ কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করে কোনো ছবিতে লেখা থাকলে তাও পড়ে শোনাতে পারবে আইফোন, কপি করে অন্য কোথাও পেস্ট করা সুবিধা থাকছে।

কেবল ক্যামেরা নয়, অপারেটিং সিস্টেমের সব জায়গায় এই সুবিধা থাকবে। মনে করুন, দেয়ালে সাঁটা পোস্টারে ফোন নম্বর আছে, কল করার অ্যাপ থেকে সরাসরি সেই নম্বরে কল করা যাবে। আবার ওয়েব ঠিকানা থাকলে ক্যামেরা তাক করে লিংক নির্বাচন করলে ওয়েবসাইটে ঢোকা যাবে। আর ঠিকানা থেকে সরাসরি ম্যাপে অবস্থান বের করার সুবিধা থাকবে বলে জানানো হয়েছে।

নাম Live Text হলেও প্রাণী, বই বা অন্যান্য বস্তুও শনাক্ত করতে পারবে এটি।

 

৫. ‘বড়’ হচ্ছে ওয়ালেট

আইফোনের ওয়ালেট অ্যাপ এমনিতেই দারুণ। ব্যাংক কার্ড, পরিবহন সেবার কার্ডসহ অনেক কিছুই এতে যুক্ত করতে পারেন। তবে এখনো পকেটের ওয়ালেটের জায়গা নিতে পারেনি  iPhone Wallet । অ্যাপল চাচ্ছে সেই কাজটিই করে দেখাতে।

আইফোন ওয়ালেট অ্যাপের ‘কার-কি’র মাধ্যমে গাড়ি চালুর সুবিধা আছে, তবে খুব বেশি প্রতিষ্ঠান সেটি সমর্থন করে না। এই ওয়ালেটে গ্রহণযোগ্য পরিচয়পত্র যুক্ত করার সুবিধাও থাকবে। মনে করুন, অফিসে ঢোকার সময় পরিচয়পত্র স্ক্যান না করে আইফোনের ওয়ালেট অ্যাপে যুক্ত ভার্চ্যুয়াল আইডি স্ক্যান করে প্রবেশ করতে পারবেন। তবে সেটি সমর্থন করতে হবে।

কবে পাওয়া যাবে আইওএস ১৫: ঠিক কবে আইফোন ব্যবহারকারীরা আইওএস ১৫ পাবেন, তা সুনির্দিষ্ট করে বলেনি অ্যাপল। তবে আগের বছরগুলোতে সেপ্টেম্বরে প্রকাশ পেয়েছে আইওএসের গুরুত্বপূর্ণ সংস্করণগুলো। এবারও হয়তো তা-ই করবে। আর পরীক্ষামূলক সংস্করণ আসবে আগামী মাসে।

ধন্যবাদ সবাইকে, ধরয ধরে এই পোস্ট টি পরার জন্য।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: This Content is CopyWrite Protected !! BY DMCA