স্মার্টফোন স্টোরেজ খালি করার উপায় – স্লো ফোন ফাস্ট করার উপায়

Share Now!

স্টোরেজ খালি করার উপায়

স্মার্টফোন স্টোরেজ – অ্যান্ড্রয়েড ফোনের স্টোরেজ (Storage) ফুল হয়ে যাওয়ার এই সমস্যায় কমবেশি আমারা সবাই পরেছি। বিশেষ করে ৬৪ জিবির কম স্টোরেজের স্মার্টফোন হলে তো কথাই নেই, বেশ ভোগান্তি পোহাতে হয় ফোনের মেমরি নিয়ে। বর্তমানে হাই কনফিগারেশন অ্যাপ ও হাই ডেফিনেশন গ্রাফিক্স গেমসমুহ স্টোরেজ কে দ্রুত ফুল করে ফেলে।

বেশিরভাগ ফোনে কম স্টোরেজ খালি থাকলে ফোনের সাধারণ পারফরম্যান্স অপেক্ষাকৃত স্লো হয়ে যায়। এছাড়াও এন্ড্রয়েডে “Internal Storage Running Out” এর মত বিরক্তিকর নোটিফিকেশন বার বার চলে আসে। এই বিরক্তিকর নোটিফিকেশন থেকে মুক্তি পেতে, স্লো ফোন ফাস্ট করতে ও কিভাবে স্মার্টফোন স্টোরেজ খালি করা যা্‌ চলুন জেনে নেওয়া যাক।

স্মার্টফোন স্টোরেজ খালি করার উপায়  How To Empty Smartphone Storage

জেনে নেওয়া যাক, স্টোরেজ খালি করার উপায় –

  • স্মার্টফোন স্টোরেজ খালি করতে প্রথমেই ফোনের সেটিং অপশনে চলে যান।
  • এবার Storage অপশনে ক্লিক করুন।
  • এখানে ফাইল আকারে যাবতীয় কন্টেন্টের লিস্ট এবং সেগুলো কতটা স্পেস নিয়ে আছে তা বিস্তারিত দেখতে পাবেন।
  • এবার ‘Free App Space’ (ফ্রী আপ স্পেস) অপশনে ক্লিক করুন।
  • এরপর, ‘Google Files App’ বা ‘Remove Items’ নামের যে কোন একটি অপশন দেখতে পাবেন। এটিকে সিলেক্ট করুন।
  • এরপর ‘Remove Items’ ফিচারের সাহায্যে আপনি ব্যাকআপ নেওয়া ফটো এবং ভিডিও সরাতে বা রিমুভ করতে পারবেন।
  • এছাড়া, আপনার ডাউনলোড করা ফাইল এবং কম ব্যবহৃত অ্যাপস গুলো সরিয়ে ফেলতে পারেন। এর ফেলে মোবাইলের স্টোরেজ যেমন ফাঁকা হবে, তেমনি স্লো ফোন ফাস্ট হবে।

আরও পড়ুনঃ

  Unlimited Google Drive Storage ব্যবহার করুন একদম ফ্রিতে 🔥

এছাড়াও স্মার্ট স্টোরেজ টগল (Smart Storage Toggle) অপশনটির মাধ্যমে আপনি আপনার স্মার্টফোনের স্টোরেজ খালি করতে পারবেন। এই অপশনটি Active করা হলে, ৩০, ৬০ অথবা ৯০ দিন অন্তর অন্তর ব্যাকআপ নেওয়া ছবি নিজ থেকেই রিমুভ হয়ে যাবে। এভাবে Storage কিছুদিন পরপর খালি করলে আপনার স্মার্টফোনটি আগের চেয়ে অনেক বেশি ফাস্ট হবে।

স্মার্টফোন স্টোরেজ খালি করার আরও বেশ কিছু  কৌশল  নিম্নে আলোচনা করা হলঃ

Free App Space Tools ( ফ্রি আপ স্পেস টুল )

অপ্রয়োজনীয় ফাইল ডিলিট করে ফোনের স্টোরেজ খালি করার উপায় প্রতিটি অ্যান্ড্রয়েড ফোনে দেওয়া রয়েছে। “Free App Space” নামের এই ফিচারটি ব্যবহার করে খুব সহজেই অ্যান্ড্রয়েড ফোনের স্টোরেজ খালি করা যায়।

Free App Space Feature টি ব্যবহার করতে প্রথমে ফোনের সেটিংস অ্যাপে প্রবেশ করতে হবে। অধিকাংশ ফোনে সেটিংস অ্যাপে প্রবেশ করে নিচে স্ক্রল করলে “Storage” অপশনটি দেখতে পাবেন। তবে শাওমির ফোনগুলোতে About Phone Option টিতে প্রবেশ করলেই Storage  Option টি দেখতে পাবেন সেটিতে প্রবেশ করুন।

এরপর স্মার্টফোন স্টোরেজ খালি করতে Free Up Space / Free Up Storage লেখায় ট্যাপ করে পরবর্তী নির্দেশনা অনুসরণ করুন। এছাড়াও Storage মেন্যু ব্যবহার করে আরো স্পেস খালি করতে পারবেন।

ফোনের কোন অ্যাপ ও গেম কতটা স্টোরেজ দখল করে আছে, তা জানতে Storage এ Click  করার পর Apps এ ক্লিক করুন। এরপর কোন অ্যাপ ফোনের স্টোরেজ কতটা জায়গা  ব্যবহার করছে, তার তথ্য বিস্তারিত দেখতে পাবেন।

Un-Used App Uninstall ( অব্যবহৃত অ্যাপ আনইন্সটল করুন )

যে সকল অ্যাপ নিয়মিত ব্যবহার করা হয় না, সেগুলো ফোন থেকে ডিলিট করে দেওয়াই ভাল। যেহেতু বর্তমানে সবাই দ্রুতগতির ইন্টারনেট ব্যাবহার করে থাকেন, এর সুবাদে বর্তমানে যেকোনো অ্যাপ বা গেম যখুন তখুন ডাউনলোড করা যায়, তাই স্টোরেজ সাশ্রয় করতে মাঝেমধ্যে ব্যবহৃত হয় এমন অ্যাপ গুলো আনইন্সটল করতে পারেন। কি ভাবে করবেন চলুন দেখে নেই।

  • প্রথমত Google Play Store আপ এ প্রবেশ করুন
  • উপরে ডান পাশে থাকা Parsonal আইকনে ট্যাপ করুন
  • Manage Apps & Device এ  Click করুন
  • এর পর Manage ট্যাবে এ ক্লিক করুন
  • Apps লেখার পাশে থাকা Recently Update এ Click করে Least Used সিলেক্ট করুন
  • এরপর কম ব্যবহৃত অ্যাপের তালিকা দেখতে পাবেন, যেসব অ্যাপ অপ্রয়োজনীয় সেই সব অ্যাপ গুলো Uninstall করে দিন

স্মার্টফোন স্টোরেজ  Cache Data Clear ( অ্যাপ ক্যাশ ডাটা ক্লিয়ার )

স্মার্টফোনের  অ্যাপসমুহ রান হওয়ার সময় বিভিন্ন ফাইল ব্যবহৃত হয়। কিছু ফাইল থেকে যায় যা পরবর্তীতে আর কোনো কাজে লাগেনা। এর ফলে অ্যাপ ডাউনলোড করার পর থেকে যতদিন ব্যবহার করা হয়েছে, প্রতিদিন কিছু না কিছু নতুন ডাটা অ্যাপটিতে জমা হয়ে থাকে।

ধরুন আপনি মেসেঞ্জার , হোয়াটসঅ্যাপে অথবা ফেসবুক ইন্টারনেট সংযোগ ছাড়া প্রবেশ করলেও আপনার  ফেসবুক  সমুহ দেখতে পারবেন। এর কারণ হলো আপনি চ্যাট কিংবা ফেসবুক দেখার সমায় ফেসবুকের কিছু ডাটা ফোনের স্টোরেজে সেভ হয়ে যায়। আর এই ডাটা বা ক্যাশ ফোনের স্টোরেজের অনেকটা জায়গা নিয়ে থাকে ফলে স্মার্ট ফোন স্লো হয়ে যায়।

তাই চাইলে অ্যাপের ক্যাশ ক্লিয়ার করে দিয়ে কিছু স্টোরেজ খালি করা যায়। অ্যাপের ক্যাশ ক্লিয়ার করতে প্রথমে Settings এ  প্রবেশ করুন।

তারপর স্টোরেজ বিভাগে চলে যান। এখানে ‘Cache’ লেখা একটি অপশন দেখতে পাবেন। এটিকে ক্লিয়ার করুন। এতে কোনো ফাইল ডিলিট হবে না। 

Settings থেকে  Storage থেকে  Cache Data তে গিয়ে ফোনের ক্যাশ ফাইল ক্লিন করতে পারবেন।

আরও পড়ুনঃ 

ডায়েট বা ব্যায়াম ছাড়াই পেটের চর্বি কমানোর কার্যকারী উপায়

Image Cloud Storage  ( ছবি অনলাইনে আপলোড )

ইন্টারনেট এর সহজলভ্যতার কারণে ক্লাউড স্টোরেজে ফাইল জমা রাখা একটি সাধারণ বিষয়ে পরিণত হয়ে গিয়েছে। ছবি ও ভিডিও ক্লাউড স্টোরেজে জমা রাখার মাধ্যমে ফোনের স্টোরেজ অনেকটা খালি রাখা সম্ভব। বিনামূল্যে অনলাইনে ফাইল জমা রাখার একাধিক মাধ্যম রয়েছে। এদের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে গুগল ড্রাইভ। Unlimited Google Drive Free তে নিতে ক্লিক করুন

এছাড়া শুধুমাত্র ফটো ও ভিডিও রাখার জন্যও গুগল ফটোস নামের আলাদা একটি অ্যাপ রয়েছে। চলুন জেনে নেওয়া যাক গুগল ফটোস অ্যাপ ব্যবহার করে কিভাবে অনলাইন ছবি জমা রাখবেন। গুগল ফটোস এ রাখা ছবি গুগল একাউন্টে জমা থাকে। এই অ্যাপটি আপনার ফোনে আগে থেকেই ইন্সটল করা থাকতে পারে। এছাড়া প্লে স্টোর থেকেও গুগল ফটোস ডাউনলোড করতে পারেন। গুগল ফটোসে ছবি জমা রাখতেঃ

  • Photos অ্যাপে প্রবেশ করুন
  • ডানদিকে টপে থাকা পারসোনাল আইকনে ক্লিক করুন
  • Photos Settings এ ট্যাপ করুন
  • Back up & Sync এ ট্যাপ করুন
  • Back up & Sync এর পাশে থাকা সুইচটি অন করে দিন

আপনার গুগল একাউন্টের স্টোরেজ কতটুকু খালি আছে ও পূর্ণ হয়েছে, তাও খেয়াল রাখুন। এছাড়াও মোবাইল ডাটা ব্যবহার করে ব্যাকাপ নেওয়া ফটোর কোয়ালিটি ও সিলেক্ট করা যাবে। আপনার ফোনে একাধিক গুগল একাউন্ট থাকলে, কোন একাউন্টে ছবি ব্যাকাপ রাখছেন তা খেয়াল রাখুন।

ব্যাকাপ সম্পন্ন হলে ব্যাকাপ নেওয়া ছবি ও ভিডিও ফোন থেকে ডিলিট করে দিতে পারেন। ইতিমধ্যে ফটোস অ্যাপের হোমে স্টোরেজ খালি করার নোটিশ হয়ত পেয়ে যাবেন। যদি এমন কোনো নোটিশ না দেখেন সেক্ষেত্রে ব্যাকাপ নেওয়া ছবি ডিলেট করতেঃ

  • Photos অ্যাপে প্রবেশ করুন
  • ডানদিকে টপে থাকা পারসোনাল আইকনে ক্লিক করুন
  • Photos Settings এ ট্যাপ করুন
  • Free up device storage এ ট্যাপ করুন
  • কতটুকু স্টোরেজ খালি হবে ও কত ছবি ডিলিট করা যাবে তার হিসাব দেখতে পাবেন
  • ব্যাকাপ নেওয়া ছবি ডিলেট করার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে Free Up এ ট্যাপ করুন।

External Memory or SD Card  ( এসডি কার্ড ব্যবহার )

বর্তমানে বেশিরভাগ ফোনে এসডি কার্ড বা মেমোরি কার্ড স্লট দেখা যায়। বিশেষ করে বাজেট ফোনগুলোতে ইন্টারনাল স্টোরেজ কম থাকায় এসডি কার্ড স্লট একটি অত্যাবশ্যকীয় ফিচার। উল্লিখিত কোনো উপায়ে যদি আপনার ফোনের স্টোরেজ খালি করতে না পারেন, সেক্ষেত্রে এসডি কার্ড বা মেমোরি কার্ড ব্যবহার করতে পারেন।

বাজারে প্রায় যেকোনো বাজেট রেঞ্জে পাওয়া যায় এসডি কার্ড বা মেমোরি কার্ড। তবে এসডি কার্ড কেনার আগে অবশ্যই ওয়ারেন্টি নিশ্চিত করে ক্রয় করুন। এছাড়াও অবশ্যই ভালো ব্র্যান্ডের এসডি কার্ড নির্বাচন করুন। এসডি কার্ড এর রাইটিং রিডিং স্পিড স্লো হলে অনেকসময় ফোন স্লো হয়ে যায়।

ছবি, ভিডিও, গান, ইত্যাদি ফোনের স্টোরেজ থেকে এসডি কার্ডে মুভ করে অ্যান্ড্রয়েড ফোনের স্টোরেজ খালি করতে পারেন। এছাড়াও অনেক ফোনে এসডি কার্ডে অ্যাপ মুভ করার ফিচার রয়েছে, চাইলে এই ফিচারটি ব্যবহার করে ফোনের স্টোরেজ খালি করতে পারেন।

Online Or Live Steaming ( অনলাইন স্ট্রিমিং সার্ভিস )

গান শোনা বা ভিডিও দেখার ফোনে ফাইল স্টোর না করে অনলাইন স্ট্রিমিং সার্ভিস ব্যবহার করুন। এর ফলে আপনার ফোনে অনেক স্টোরেজ ফাঁকা হয়ে যাবে।

Smart Phone Reset  ( স্মার্টফোন রিসেট করুন )

উপরের কোন উপায়ে আপনার ফোনের স্টোরেজ খালি না হলে আপনার স্মার্টফোনটি ফ্যাক্ট্রি রিসেট করুন। এর মাধ্যমে আপনার ফোন আবার নতুন অবস্থায় পৌঁছে যাবে। আর ফোন থেকে সব ডাটা ডিলিট হয়ে যাবে। তবে খেয়াল রাখবেন একবার ফ্যাক্ট্রি রিসেট করলে আপনার ফোনের সব ফাইল পাকাপাকি ভাবে ডিলিট হয়ে যাবে। তাই ফ্যাক্ট্রি রিসেটের আগে ফোনের প্রয়োজনীয় ফাইল ব্যাক আপ নিতে ভুলবেন না।

আশা করি বিষয়টা বুঝতে পেরেছেন, আরও কিছু জানার থাকলে কমেন্ট করুন । ধন্যবাদ 

 

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.